আজ-  ,


সময় শিরোনাম:
«» মৌলভীবাজারে মা ও শিশুদের জন্য শেখ রাসেল স্টুডেন্ট এসোসিয়েশনের ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প «» মৌলভীবাজারে আত্ম প্রকাশ করলো ভিন্ন ধারার অনলাইন নিউজ পোর্টাল আইন নথি। «» মৌলভীবাজারে বাল্য বিয়েতে ভূয়া জন্ম সনদ «» নওগাঁর ঐতিহ্যবাহী প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শন পাহাড়পুর বৌদ্ধবিহার অবশেষে খুলে দেয়া হলো। «» নোয়াখালীতে ভয়াবহ অগ্নকান্ড «» বেগমগঞ্জে শিশু ধর্ষনচেষ্টায় শিক্ষক গ্রেফতার «» নওগাঁ সাপাহারে হাটবার করে ইউনিয়ন পরিষদ সমূহে পুলিশী সেবা প্রদান। «» টিআইবি সংবাদ বিজ্ঞপ্তি «» টিআইবি সংশোধিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তি «» শ্রীমঙ্গলে নবজাগরণ ও প্রজেক্ট ওয়ান মিলিয়ন প্লান্টেশনের উদ্যোগে বৃক্ষ রোপণ কর্মসূচি

ডা. টিটোর বদলী উপলক্ষে বিদায় সংবর্ধনা শ্রীমঙ্গল আইডিয়াল স্কুলের

শ্রীমঙ্গলবাসীকে কাঁদিয়ে বিদায় নিলেন ডা. টিটো

দীপ্ত নিউজ ডটকম:: শ্রীমঙ্গল উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. জয়নাল আবেদীন টিটোকে কিশোরগঞ্জে বদলি উপলক্ষে শ্রীমঙ্গল আইডিয়াল স্কুলের আয়োজনে এক বিদায় সংবর্ধনার আয়োজন করা হয়। বৃহস্পতিবার ৩১ জানুয়ারি সন্ধা ৬টায়, জালালিয়া রোডস্থ শ্রীমঙ্গল আইডিয়াল স্কুল প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন শ্রীমঙ্গল আইডিয়াল স্কুলের প্রিন্সিপাল এহসান বিন মুজাহির।

স্কুলের ভাইস প্রিন্সিপাল মোঃ শামীম মিয়ার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিদায়ী বক্তব্য রাখেন শ্রীমঙ্গল উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. জয়নাল আবেদীন টিটো। এতে প্রধান অতিথির বক্তৃতা করেন শ্রীমঙ্গল প্রেসক্লাবের সিনিয়র সহ-সভাপতি ইসমাইল মাহমুদ। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ট্যুরিস্ট পুলিশ মৌলভীবাজার জোনের সাব ইন্সপেক্টর মোঃ নোয়াব আলী, বাংলাদেশ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রধান শিক্ষক সমিতির মিডিয়া প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ডা. মোঃ একরামুল কবীর, দৈনিক সমকালের শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধি শামিম আক্তার হোসেন মিন্টু, দৈনিক করতোয়ার শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধি মোঃ আব্দুস শুকুর।


অন্যান্যদের মাঝে বক্তব্য রাখেন-আনন্দ টেলিভিশন ও দৈনিক খোলা কাগজের শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধি তোফায়েল পাপ্পু, আখলাক ফার্মেসির সত্ত¡াধিকারী মনসুরুল আলম মাসুম, শ্রীমঙ্গল আইডিয়াল স্কুলের সহকারী শিক্ষক আশিকুর রহমান, হাবিবুর রহমান, আতিকুর রহমান, সাদিকুর রহমান, সাপ্তাহিক শ্রীভূমির রিপোর্টার নাজিমুল হক শাকিল, ব্যবসায়ী খালিদ সাইফুল্লাহ, শহিদুল ইসাম বাপ্পী প্রমুখ। বিদায়ী সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে শ্রীমঙ্গল আইডিয়াল স্কুলের পক্ষ থেকে বিদায়ী সংবর্ধনা স্মারক তুলে দেন স্কুলের প্রিন্সিপাল এহসান বিন মুজাহির।

বিদায়ী বক্তৃতায় ডা, টিটো বলেন-দীর্ঘদিন আমি শ্রীমঙ্গল উপজেলায় ছিলাম। আমি প্রথম থেকেই মনে করতাম আমি শ্রীমঙ্গল সার্ভিস দিতে এসেছি, কমসময়ে সাধারণ মানুষের অনেক ভালোবাসা পেয়েছি। চেষ্টা করেছি রোগীদের আন্তরিক সেবা দিতে। এতে করে আমি এতো বেশি ভালোবাসা পাবো, সেটা আমি কল্পনাও করতে পারিনি। আমি মানুষকে ভালোবাসাটাকে আমার কর্তব্য মনে করেছি, তারা আমাকে প্রতিদান দিচ্ছেন। চা-বাগানের গরীব মানুষদের কাছে বেশি গিয়েছি। ছুটির দিনও চা-শ্রমিকদের শারীরিক খোঁজ খবর নিতে চলে যেতাম। পুরো শ্রীমঙ্গলের সর্বস্তরের মানুষের মাঝে একটি আন্তরিক সম্পর্ক তৈরী হয়ে গেছে। যা কখনো ভুলার নয়। আমি কোনো অপরাধ করিনি, আকস্মিক আমাকে বলা হলো চলে যেতে। আমি সরকারের ্অর্ডার এবং আল্লাহর ফয়সালা সন্তুষ্ট চিত্তে মেনে নিয়ে শুক্রবার সকালেই নতুন কর্মস্থলে যোগদান করবো। সময় সংক্ষেপ থাকায় প্রিয় এবং পরিচিত অনেক মানুষের কাছে গিয়ে বিদায় নিতে পারিনি, না পরায় দুঃখপ্রকাশ করছি। আমিও দোয়া করবো আপনারা সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন যেনো সৎ পথে থাকতে পারি এবং প্রকৃত দায়িত্ব যথাযথভাবে পালন করে মানুষের সেবায় নিজেকে বিলিয়ে দিতে পারি।


বক্তারা ডা. টিটো সম্পর্কে বলেন-২০১৫ সাল থেকে তিনি শ্রীমঙ্গল উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা হিসেবে সততা ও নিষ্টার সাথে দায়িত্ব পালন করছেন। পর্যটন নগরী ও চা অধ্যুষিত শ্রীমঙ্গল সরকারি হাসপাতালে ছুটে আসা মানুষদের চিকিৎসা সেবা দিয়ে মাত্র তিন বছরে সকলের হৃদয়ে স্থান করে নিয়েছেন ডা. টিটো। দূর-দুরান্ত থেকে আগত রোগীদের শত ছাপ, যন্ত্রণা কটুবাক্যেও কখনো রাগ, অভিমান ও বিচলিত হতে দেখা যায়নি। তিনি হাসি মুখে সকলকে চিকিৎসা সেবা দিয়েছেন পরম আদর ও স্নেহে। তার এসব গুণাবলির কারণে ইতেমধ্যে তিনি শ্রীমঙ্গলের অসহায় গরীব মানুষের মাঝে ব্যাপক সুনাম অর্জন করেছেন।

বক্তারা আরও বলেন-ডা. জয়নাল আবেদীন টিটো শুধু একজন ডাক্তারই নয়; তিনি সাধারণ মানুষের একজন সেবক। একজন মহৎ মানুষও। তাকে স্থানীয়রা দিন-রাত নিজেদের সুখে-দুঃখে পাশে পেয়েছেন। একজন আদর্শ মানুষ হিসেবে সকলের কাছে অনুকরণীয় ও ব্যাপক জনপ্রিয় হয়ে উঠেছেন তিনি। তিনি ছিলেন সৎ, কতর্ব্যপরায়ণ, দায়িত্বশীল, রোগী বান্ধব, পরোপকারী, নির্লোভ ও নিরহঙ্কার। ডা. জয়নাল আবেদীন বর্তমান কর্মস্থলে যোগদানের পর থেকে শ্রীমঙ্গল সরকারি হাসপাতালে বিভিন্ন অনিয়ম, দুর্নীতির পথ তিনি বন্ধ করে দেন। অন্যায় অনিয়ম দুর্নীতির বিরুদ্ধে তিনি ছিলেন সোচ্চার। ২০১৮ সালে শ্রীমঙ্গল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপেলক্স জরুরি প্রসূতি সেবায় অবদান স্বরুপ স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় থেকে অ্যাওয়ার্ড পেয়েছে। মাতৃস্বাস্থ্য ও প্রসূতি সেবায় পর পর তিনবার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে পুরষ্কার পেয়েছে। ২০১৮ সালে নরমাল ডেলিভারিতে সিলেট বিভাগে দ্বিতীয় স্থান অর্জন করেছে শ্রীমঙ্গল সরকারি হাসপাতাল। তিনি যোগদানের পর থেকে সরকারি হাসপাতালের প্রতি মানুষের আস্থা বেড়েছে। হাসপাতালে চিকিৎসা সেবার মান বৃদ্ধি পেয়েছে। বহিঃবিভাগের রোগীর সংখ্যাও বহুগুণ বৃদ্ধি পেয়েছে। কর্তব্যরত ডাক্তার নার্সদের তিনি সব সময় উদ্বুদ্ধ করতেন রোগীদের সাথে যেন সম্মানজনক আচরণ করা হয়। বিদায়ের প্রাক্কালে আজ দুপুরে তিনি শ্রীমঙ্গল সরকারি হাসপাতাল মসজিদ সম্প্রাসারণ ও পূণর্নিমাণের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করে গেছেন।


ডা. জয়নাল আবেদীন টিটো ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ থেকে ২৮তম ব্যাচে এমবিবিএস পাস করেন। তারপর এফসিপিএস পার্ট ওয়ান করেন মেডিসিনে এবং এমডি পার্ট ওয়ান করেন কার্ডিওলজিতে। তার গ্রামের বাড়ি কিশোরগঞ্জ জেলার তাড়াইল উপজেলায়। প্রসঙ্গত, ডা. জয়নাল আবেদীন গত ২০১৫ সালের ৮ অক্টোবর শ্রীমঙ্গল উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা হিসেবে যোগদান করেন।